Main Menu

আমাদের সচেতনতা অটিজম আক্রান্তদের সমাজে প্রতিষ্ঠিত করতে পারে-জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের

শরীয়তপুরে বিশ্ব অটিজম দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের বলেছেন আমাদের সামাজিক ও ব্যক্তিগত সচেতনতার সুবাদে এখন অটিজম আক্রান্ত শিশুরা সমাজের বোঝা নয়। সরকারের নানা প্রকার সহায়তা ও প্রশিক্ষণের কারণে তারা নিজ নিজ অবস্থানে থেকে ভূমিকা রাখছে। আমাদের প্রধানমন্ত্রী নিজে দেশের অটিজম আক্রান্তদের বিষয় অত্যান্ত সজাগ থাকায় এখন তারা বিভিন্ন সহায়তা পাচ্ছে। আর আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুল আজ বিশ্ব অটিজম সচেতনতা নিয়ে কাজ করে বিশ্ব নন্দিত হয়েছেন। জেলা প্রশাসক ২ এপ্রিল মঙ্গলবার সকালে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসন ও জেলা সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উদ্যোগে বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে জেলা সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ কামাল হোসেন এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আল মামুন শিকদার, শরীয়তপুর জেলা আওয়ামীলীগ সাবেক সভাপতি আবদুর রব মুন্সী জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, শরীয়তপুর সদর আধুনিক হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডাঃ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ। বক্তব্য রাখেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সামিনা ইয়াসমিন, সমাজ সেবা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ফয়জুর বারী, জাজিরা উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার সৌরভ রেজা সিহাব, ব্র্যাক জেলা প্রতিনিধি জিয়া উদ্দিন আহমেদ, এসডিএস, নুসা ও সোডেপ প্রতিনিধিগন বক্তব্য রাখেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের আরো বলেন, প্রতিবন্ধীরা সমাজের বোঝা নয়। তারা আমাদের সমাজেরই একটি অংশ। ২০০৮ সাল থেকে আমাদের দেশে পালিত হচ্ছে বিশ্ব অটিজম দিবস। নিওরোডেভলোপমেন্টাল ডিজঅর্ডার বিষয়ক বাংলাদেশ ন্যাশনাল এডভাইজারী কমিটির চেয়ারপারর্সন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য কন্যা সায়মা ওয়াজেদ হোসেন দক্ষিন-পূর্ব এশিয় অঞ্চলে অটিজম বিষয়ক বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)’র চেয়ারম্যান হিসেবে আমাদের জন্য সুনাম বয়ে আনছে।
দিবসটি উপলক্ষে মঙ্গলবার সকালে শরীয়তপুর পৌরসভা সংলগ্ন কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বর থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়।

 

Facebook Comments





error: Content is protected !!