Main Menu

দেখার যেন কেউ নেই শরীয়তপুর-চাঁদপুর সড়কের বেহাল দশা

॥ এম হারুন অর রশীদ ॥ শরীয়তপুর-চাঁদপুর আঞ্চলিক সড়কটি যেন মৃত্যুর ফাঁদ। প্রতিদিনই একাধি দূর্ঘটনার পাশাপাশি ঘন্টার পর ঘন্টা আটকে থাকছে যানবাহন। শরীয়তপুর জেলার মনোহর মোড় থেকে নরসিংহপুর ফেরী ঘাট পর্যন্ত ৩৫ কিলোমিটার এসড়কের ৩০ কিলো মিটারই ভাঙ্গা, খানা খন্দকে ভরা।এ কারনে যে কোর সময় এ সড়কে যানবাহন চলাচল যে কোন সময় বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এদিকে মঙ্গলবার বিকেলে এ সড়কের নারায়নপুর এলাকায় াাটকে পড়া ট্রাক চালকরা সড়ক সংস্কারের দাবী জানিয়ে ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারে কার্যালয়ে এসে অবস্থান ধর্মঘট করে । নির্বাহী অফিসার সোহেল আহমেদ এ বিষয়ে সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীর সাথে কথা বলেন। পরে চালকদের জানান যে দ্রুতই ইটদিয়ে বড় বড় গর্তগুলো ভরাটে ব্যবস্থা করা হবে। তার আশ্বাসের ভিত্তিতে চালকরা ফিরে যান।
এদিকে আজ বুধবার সকালে ভেদরগঞ্জ পৌরসভার মাস্টার বাড়ি মোড়, ব্র্যাক অফিস ও ছয়গাও ইউনিয়নের পাপরাইলমোড়ে সড়কের উপর তিনটি ট্রাক আটকে যায়। ফলে উভয় পাশে প্রায় শতাধিক যানবাহন আটকা পরেছে। অপর দিকে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে শরীয়তপুর-চাদপুর মহাসড়কের ভেদরগঞ্জে ব্র্যাক অফিস মোড়ে ডাল বোঝাই ট্রাক খাদে পড়ে যায়। এতে ট্রাকের চালক ও হেলপার মারত্মক আহত হয়। স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে ভেদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে।
গত কাল রাতে মাদারীপুর জেলার টেকেরহাট বাজারের পুর্ণলক্ষ্মি ডাল মেইল থেকে ২০টন ডাল বোঝাই করে একটি ট্রাক চট্রগ্রামের উদ্দ্যেশে রওয়ানা দেয়। পথিমধ্যে শরীয়তপুর-চাদপুর মহাসড়কের ভেদরগঞ্জের পুটিয়া নামক স্থানে সড়কের মাঝখানে গর্ত হয়ে পানি জমে থাকায় ট্রাকটি এক পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় উল্টে খাদে পড়ে যায়। আজও সেই গাড়ী উদ্ধার করা সম্ভব না হওয়ার ডাল গুলো সম্পুর্ন ভাবেই নষ্ট হওয়ার সম্ভবনা দেখা দিয়েছে।

Facebook Comments





error: Content is protected !!